যে কারণে এই ১৮ দেশ এখনো করোনামুক্ত


১৮ দেশ করোনামুক্ত

বিশ্ব জুড়ে করোনার হাহাকার। চারিদিকে শুধু মৃত্যু-মিছিল। বিশ্বের ১৮৫টি দেশ যুদ্ধ করছে মারণ ভাইরাস করোনার বিরুদ্ধে। বিশ্বের প্রায় সমস্ত দেশই ভুগছে করোনা আতঙ্কে। অনেক দেশই করোনার প্রকোপে মহামারীর আকার নিয়েছে। তবে এই মারণ ভাইরাস এখনও থাবা বসাতে পারেনি বিশ্বের ১৮টি দেশে। কি অবাক হচ্ছেন? এই ১৮টি দেশকে রাষ্ট্রসংঘ করোনাভাইরাসমুক্ত দেশ বলে ঘোষণা করেছে।

ভাবছেন হয়তো কী ভাবে সম্ভব হল এমন ম্যাজিক? এই দেশগুলো এতটাই ছোট যে বিদেশী পর্যটক প্রায় ঢোকে না বললেই চলে। তাই ঢুকতে পারেনি এই মরণ ভাইরাসও। তবে এই তালিকায় থাকা সত্ত্বেও দুটি দেশের বিষয়ে এখনও সম্পূর্ণ নিশ্চিন্ত হতে পারছে না রাষ্ট্রসংঘ। এর একটি উত্তর কোরিয়া এবং অন্যটি ইয়েমেন।

চিনেরই একেবারে পাশে থাকা উত্তর কোরিয়াতে করোনা ভাইরাস এখনও থাবা বসাতে পারেনি বলেই দাবি সে দেশের সরকারের।

তবে বিশেষজ্ঞদের দাবি, উত্তর কোরিয়ার ‘স্বৈরাচারী’ শাসক কিম জং উন বিশ্বের কাছে প্রকৃত তথ্য লুকিয়েছেন। একই অভিযোগ উঠছে ইয়েমেনের দিকেও। কিন্তু এই দুটি দেশ ছাড়া বাকি ১৬টি দেশ সম্পর্কে একেবারে নিশ্চিত রাষ্ট্রসংঘ।

রাষ্ট্রসংঘের দেওয়া তথ্য অনুযায়ী, একাধিক ক্ষুদ্র ক্ষুদ্র দ্বীপ বা দেশে এই মারণ ভাইরাসের প্রকোপ পরেনি এখনও। এই সব দেশের জনসংখ্যা ১০ হাজারেরও কম বা কোথাও তার একটু বেশি। এদের মধ্যে রয়েছে নাউরু, কিরিবাতি, টুভালুর মতো দেশ। এছাড়াও এই তালিকায় রয়েছে লেসথো, মার্শাল আইল্যান্ড, মাইক্রোশিয়া, পালাউ, সামোয়া আইল্যান্ড, টোমে অ্যান্ড প্রিন্সিপি, সলোমোন আইল্যান্ড, দক্ষিণ সুদান, তাজিকিস্তান, তুর্কমেনিস্তান, টোঙ্গা, ভানুয়াতু মতো দেশ।

এই তালিকায় এমন ১০টি দেশ আছে, যেখানে পর্যটক বা বিদেশী নাগরিক প্রায় ঢোকেনা বললেই চলে। ফলে এই দেশগুলিতে এমনিতেই বজায় রয়েছে সামাজিক দূরত্ব। তাই এই দেশগুলি এখনও করোনাভাইরাসের থাবা থেকে মুক্ত। এর থেকে স্পষ্ট যুদ্ধ জেতার একমাত্র ভরসা পারিপার্শ্বিক দূরত্ব।

এসএম/আওয়াজবিডি

ads