করোনাভাইরাস সংকটে মৌলভীবাজারে ৪০ ফ্ল্যাট ও দোকানের ভাড়া মওকুফ


sohel ahammed

চলমান করোনাভাইরাস সংকটে মৌলভীবাজারে নিজের মালিকানাধীন একটি পেট্রল পাম্পসহ প্রায় ৪০টি ফ্ল্যাট ও দোকানের ভাড়া মওকুফ করেছেন আওয়ামী লীগের ধর্মবিষয়ক উপ-কমিটির সদস্য সুয়েল আহমদ। সুহেল আহমদের বাড়ি মৌলভীবাজার সদর উপজেলার কনকপুর এলাকায়।

সুহেল আহমদ বলেন, মানুষের বিপদে মানুষের পাশে দাঁড়ানো উচিত। আমার সাধ্যমতো নিম্নআয়ের মানুষকে খাদ্য সহায়তা দিচ্ছি। কিন্তু যারা দীর্ঘদিন ধরে আমার বিভিন্ন দোকান এবং ফ্ল্যাটে ভাড়া থাকেন তাদের সঙ্গে সুন্দর একটা সম্পর্ক গড়ে উঠেছে। এই মানুষগুলোর বিপদের কথা চিন্তা করে ভাড়া মওকুফ করলাম।

 
তিনি বলেন, কনকপুরে একটি পেট্রল পাম্প এবং কয়েকটি দোকান, শহরের শান্তিভাগে ১৬টি ফ্ল্যাটসহ শহরের বিভিন্ন এলাকায় ৪০টি প্রতিষ্ঠানের সবার গত মাসের ভাড়া মওকুফ করে দিয়েছি। করোনা অবস্থার যদি পরিবর্তন না হয় আগামীতে মাসেও একই চিন্তা করব।

সুহেল আহমদ বলেন, সবাইকে অনুরোধ করেছি, ভাড়ার টাকা বাঁচিয়ে অন্তত একজন অসহায় মানুষকে এক বেলা খাবার দেয়ার চেষ্টা করবেন। মানুষের পাশে দাঁড়ানোর সুযোগ আসলে ভাগ্যের ব্যাপার।

সুহেল আহমদের মানবিক এই উদ্যোগে খুশি ভাড়াটিয়ারা। শহরের শান্তিভাগ এলাকার একটি ফ্ল্যাটে ভাড়া থাকেন মিঠু দত্ত। তিনি বলেন, আমার গত মাসের নয় হাজার টাকা ভাড়া মওকুফ করে দিয়েছেন সুহেল ভাই। আমার পাশের আরও ১৫টি ফ্ল্যাটেরও ভাড়া মওকুফ করেছেন। তিনি প্রমাণ করেছেন মানুষ মানুষের জন্য।

মৌলভীবাজার পৌরসভার মেয়র ফজলুর রহমান বলেন, মানবিক দিক বিবেচনা করে শহরের বাসা-বাড়ির মালিক ও বিত্তবানদের মানুষের পাশে দাঁড়িয়ে এক মাসের ভাড়া মওকুফের যে আহ্বান জানিয়েছি তাতে অনেকেই সাড়া দিয়েছেন। সুয়েল আহমেদকে ধন্যবাদ জানাচ্ছি মানুষের পাশে দাঁড়ানোর জন্য।

 
গত ৩১ মার্চ পৌর এলাকার বস্তিবাসী এবং নিম্ন-মধ্যবিত্তদের এক মাসের বাসাভাড়া মওকুফ করেত মালিকদের প্রতি অনুরোধ জানান মৌলভীবাজারের পৌর মেয়র ফজলুর রহমান। এক্ষেত্রে মৌলভীবাজার পৌরসভার পক্ষ থেকে মালিকদের জন্য গত মাসের পানির বিল মওকুফের ঘোষণা দেন মেয়র।

আরএইচ/আওয়াজবিডি

ads