প্রধানমন্ত্রীর বক্তব্যে চটেছেন শেন ওয়ার্ন


শেন ওয়ার্ন

চীনের উহান থেকে গোটা বিশ্বে ছড়িয়ে পড়েছে করোনাভাইরাস। মরণঘাতী এই ভাইরাসে মৃত্যু সংখ্যা ১৮ হাজার ছাড়িয়েছে। নতুন সংক্রমণ ঠেকাতে বিশ্ব যেন অবরুদ্ধ হয়ে পড়ছে। সারাবিশ্বের মতো অস্ট্রেলিয়াতেও ছড়িয়ে পড়েছে প্রাণঘাতী করোনাভাইরাস।

এই পরিস্থিতির মধ্যেই করোনাভাইরাস সংক্রমণরোধে এক বিবৃতি দিয়েছিলেন অস্ট্রেলিয়ার প্রধানমন্ত্রী স্কট মরিসন। কিন্তু দেশের প্রধানমন্ত্রীর বিবৃতি অস্ট্রেলিয়ার ক্রীড়াবিদদের কাছে ভালো লাগেনি। মরিসনকে স্রেফ ধুয়ে দিয়েছেন তারা। বেজায় চটে গেছেন সাবেক অজি স্পিন কিংবদন্তি শেন ওয়ার্ন।

তিনি প্রকাশ্যেই সোশ্যাল সাইটে বিবৃতি দিয়ে তাদের প্রধানমন্ত্রীকে আবোল তাবোল কথা থামাতে বলেছেন।

সোমবারের মধ্যেই অস্ট্রেলিয়ার সব পানশালা ও থিয়েটার বন্ধ হয়ে গেছে। স্কট মরিসন এরপরও নিরাপত্তা নিখুঁত রাখতে সৌন্দর্যচর্চার সেলুন থেকে পার্লারগুলো বন্ধ রাখার নির্দেশ দেন।

এ ছাড়াও বিয়ে কিংবা শেষকৃত্য অনুষ্ঠানে ৫ থেকে ১০জন মানুষের বেশি সমাগম না করার নির্দেশ। কিন্তু বিপত্তিটা করে বসেন বাচ্চাদের স্কুল নিয়ে বলার সময়। মরিসন বলেন, ‘বাচ্চাদের নিরাপদে স্কুলে পাঠাতে পারেন।

এতেই ক্ষেপেছেন ওয়ার্ন। তিনি কোনো রাখঢাক না করে বলেছেন, প্রধানমন্ত্রীর বক্তব্য ঠিক বুঝতে পারছি না। আর সবাই শপিং সেন্টারে গিয়ে কাপড়-চোপড় কিনতে পারবে? এটা কেমন হলো! প্রধানমন্ত্রী তো সবাইকে চমকে দিলেন! প্রধানমন্ত্রী হয়ে সবাইকে খুশি রাখা সম্ভব না।তবে অবশ্যই অস্ট্রেলিয়াকে লকডাউন করা উচিত। আসুন অন্য দেশগুলোর ভুল থেকে শিক্ষা নেই। স্বাস্থ্য সবার জন্যই সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ।

রেদওয়ানুল/আওয়াজবিডি


 







 

ads