কবে-কখন আকবরদের সাথে কথা বলেছিলেন প্রধানমন্ত্রী, জানালেন পাপন


বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন

বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ক্রিকেটকে প্রচণ্ড ভালোবাসেন। বাংলাদেশের খেলা হলে খুটিয়ে দেখেন তিনি। সময় পেলে আচমকা মাঠেও হাজির হন। শেখ হাসিনা যুবাদের খেলাও দেখেছেন। সবরকম খোঁজখবর নিয়েছেন। সে কথা বুধবার (১২ ফেব্রুয়ারি) মিরপুরে সংবাদে সম্মেলনে জানিয়েছেন বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) সভাপতি নাজমুল হাসান।

তিনি বলেন,‘ সেমিফাইনালে জেতার পর রাতে সাড়ে দশটার সময় আমি গণভবনে যাই। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী তখন বিদেশে চলে যাচ্ছেন। কিন্তু তারপরও উনি প্রত্যেকটা খেলোয়াড়ের সঙ্গে ভিডিও কলে কথা বলেছেন। এগুলো তো সবাই জানে না। প্রধানমন্ত্রী তাদেরকে সাহস দিয়েছেন। আমি এবং প্রধানমন্ত্রী দুইজনই মনে প্রাণে বিশ্বাস করে রেখেছিলাম, আমরা চ্যাম্পিয়ন হবো।’

বাংলাদেশের ক্রিকেটে ইতিহাসে এমন দিন কখনো আসেনি। বাংলাদেশ বিশ্বচ্যাম্পিয়ন হয়েছে। বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব-১৯ ক্রিকেটের দলের সাফল্য অন্য যেকোনো অর্জনের চেয়ে সর্বোচ্চ। বাংলাদেশের ক্রিকেটে ইতিহাসে এটিই সেরা। যুবাদের এই প্রাপ্তির সঙ্গে কোনো কিছুর তুলনা হয় না।

বিসিবি সভাপতি বলেছেন, ‘বিশ্বকাপ বিশ্বকাপ। এর ওপরে কিছু হতে পারে না। এসিসির জন্য সবচেয়ে বড় টুর্নামেন্ট এশিয়া কাপ, আইসিসির জন্য বিশ্বকাপ। ক্রিকেটে বিশ্বকাপের ওপরে কিছু হয় না। এই চ্যাম্পিয়ন আগামী দুই বছর থাকবে বাংলাদেশ। এই সময়টাতে আমরা গর্বে থাকতে পারব, এটাই বড় কথা।’

যুবাদের জন্য নতুন ঘোষণা দিয়েছেন বিসিবি সভাপতি। যুবারা আগামী দুই বছর চুক্তিতে থাকবেন। বেতন হিসেবে প্রতি মাসে তারা এক লাখ টাকা করে পাবেন। তবে কেউ বিচ্যুতি হয়ে গেলে তার চুক্তি থেকে বাদ পড়ার সম্ভাবনা রয়েছে।

এসএম/আওয়াজবিডি

ads