নাচতে নাচতে প্যান্ট খুলে ফেললেন ম্যারাডোনা (ভিডিও)


ডিয়েগো ম্যারাডোনার দুই পায়ে ফুটবল আর বুকের মধ্যে বিতর্ক। মন যা চায়, তাই করেন। কারও ধার ধারেন না ফুটবল কিংবদন্তি। এই যেমন ধরুন, ম্যারাডোনার মন চাইল সাবেক প্রেমিকার সঙ্গে একটু নেচে নিলেন। ওসব কোয়ারেন্টিন নিয়মটিয়ম মানার বালাই নেই।

আর্জেন্টাইন সংবাদমাধ্যমে খবরটি ঘুরছে। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়েছে ভিডিও। সেই ভিডিও দেখেই ভক্তকুলের চক্ষু চড়কগাছ। এ কী! কিংবদন্তি যে প্যান্ট খুলছেন!

বিশ্বাস করুন আর না-ই করুন, সম্প্রতি ছড়িয়ে পড়া ম্যারাডোনার ভিডিওতে এই দৃশ্যই দেখা গেছে। ভিডিওটি কবেকার, সে বিষয়ে সংবাদমাধ্যমগুলো এখনো ঠিক নিশ্চিত হতে পারেনি। তবে বেশির ভাগের মতামত, ভিডিওটি সাম্প্রতিক।

জিমনেশিয়া লা প্লাটার এ কোচ পারিবারিক অনুষ্ঠানে নেচেছেন। নিজ বাসায় ডেকে এনেছিলেন সাবেক প্রেমিকা ভেরোনিকা ওজেদাকে। কয়েক মাস আগে দুজনের বিচ্ছেদ ঘটেছে এমন খবর বেরিয়েছে সংবাদমাধ্যমে। তাঁর সঙ্গে নাচের একপর্যায়ে ক্যামেরায় পশ্চাৎদেশ তাক করে প্যান্ট খুলে দেখান ম্যারাডোনা। এ সময় ভেরোনিকোর মা সোফায় বসা ছিলেন। কিছুটা বিব্রত হয়েই তিনি স্থানত্যাগ করেন।

সংবাদমাধ্যমে ভেরোনিকার ভাষ্যমতে, এপ্রিল পর্যন্ত সন্তানকে নিয়ে একাই ছিলেন তিনি। ম্যারাডোনার সঙ্গে গত কয়েক মাসে তাঁর দেখা হয়নি। এ ছাড়া দুজনে যেখানে থাকেন কোয়ারেন্টিন নিয়ম ভেঙে চলাফেরা করাও কঠিন।

স্থানীয় সংবাদমাধ্যম তাই মনে করছে, ম্যারাডোনাই স্বপ্রণোদিত হয়ে বাসায় নিয়ে এসেছিলেন তাঁর সাবেক প্রেমিকাকে। লস পালমেরাস ব্যান্ডের সুরে সুরে নেচেছেন ১৯৮৬ বিশ্বকাপে আর্জেন্টিনাকে প্রায় একাই চ্যাম্পিয়ন করা কিংবদন্তি।

ভিডিওতে দেখা যায়, ভারী ও মোটা শরীরের কারণে নাচের মধ্যে একটু পরপর প্যান্ট টানছিলেন ম্যারাডোনা।

মজার ব্যাপার হলো ম্যারাডোনার এই ভিডিও সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে কাল ঝড় তুলেছে। কাল ছিল ম্যারাডোনার শতাব্দির সেরা গোল-এর ৩৪ বছর পূর্তি। ১৯৮৬ বিশ্বকাপের এই দিনে অবিশ্বাস্য গোলটি করে যেমন ভক্তদের চোয়াল ঝুলিয়ে দিয়েছিলেন, ৩৪ বছর পর ঠিক একই দিনেও চোয়াল ঝুলল ম্যারাডোনা-ভক্তদের; অন্য কারণে।

ads