খালি মাঠে খেলা আর কনে ছাড়া বিয়ে একই ব্যাপার: শোয়েব


শোয়েব

করোনাভাইরাসের কারণে বিশ্বে ক্রিকেট খেলা বন্ধ রয়েছে। স্বাস্থ্য ঝুঁকি এড়াতে তবে ফাঁকা মাঠে খেলা যায় কিনা তা নিয়ে চলছে আলোচনা।

খালি মাঠে খেলার বিরোধিতা করেছেন পাকিস্তানের কিংবদন্তী খেলোয়ার শোয়েব আখতার।

তিনি বলেন,দর্শকশূন্য স্টেডিয়ামে খেলা হয়তো ক্রিকেট বোর্ডগুলোর কাছে ভালো মনে হতে পারে। তবে আমরা এটিকে সমর্থন দিতে পারি না।

খালি স্টেডিয়ামে খেলা কনে ছাড়া বিয়ের মতো। আমাদের খেলার জন্য দর্শক লাগবেই।

দর্শকরাই যে কোনও ম্যাচের প্রাণ। আমি আশা করি এক বছরের মধ্যেই এ করোনা পরিস্থিতি স্বাভাবিক হয়ে যাবে।’

এরকম কথা আগেই বলেছিলেন ভারতীয় দলেন অধিনায়ক বিরাট কোহলি। তিনি বলেন, একজন ক্রিকেটারের পক্ষে দর্শকশূন্য স্টেডিয়ামে খেলা কষ্টের।

দর্শক ছাড়া স্টেডিয়ামে খেলা হলে ম্যাজিকাল মোমেন্ট তৈরি হবে না।

এদিকে ২০০৩ ওয়ানডে বিশ্বকাপে ভারতের বিরুদ্ধে ম্যাচ নিয়ে কথা বলছিলেন শোয়েব আখতার। তিনি জানান, সেই ম্যাচে শচীন টেন্ডুলকার ৯৮ রানে আউট হওয়ায় তিনি হতাশ হয়েছিলেন। আখতারের বাউন্সারে ক্যাচ দিয়ে ফিরেছিলেন শচীন।

শোয়েব বলেন, ওই দিন শচিন স্পেশাল ইনিংস খেলেছিল। ও সেঞ্চুরি করলে খুশি হতাম। আমার বাউন্সারে ছক্কা হলেও আফসোস থাকত না। আমি আশা করেছিলাম যে ও সেঞ্চুরি করবে।

রেদওয়ানুল/আওয়াজবিডি

ads