বেগম জিয়াকে জেলে মেরে ফেলার রাজনীতি শেখ হাসিনা করেনা: ওবায়দুল কাদের


ওবায়দুল কাদের

মির্জা ফখরুল ইসলামের বক্তব্য প্রসঙ্গে আওয়ামী লীগের সাধারন সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেছেন, তিনি (মির্জা ফখরুল) বলেছেন সরকার জেলের মধ্যে খালেদা জিয়াকে মেরে ফেলতে চাই কষ্ট দিয়ে, সে ধরনের ইচ্ছা শেখ হাসিনার নেই। আমরা এই প্রতিহিংসার রাজনীতি করি না। বেগম জিয়াকে জেলের মধ্যে মেরে ফেলবো-এ রাজনীতি বঙ্গবন্ধু করে নাই, শেখ হাসিনাও করে না।

খালেদা জিয়ার অসুস্থতা প্রসঙ্গে বলেছেন, বেগম জিয়ার স্বাস্থ্য সম্পর্কে দলের লোকেরা বলে একটা আর চিকিৎসকেরা বলেন আরেকটা। চিকিৎসকেরা বলেন তার স্বাস্থ্য নিয়ন্ত্রণে আছে। আর দলের লোকেরা তাকে অসুস্থ থেকে আরো বেশী অসুস্থ বানিয়ে যতটা না চিকিৎসার জন্য ভাবছে তার চেয়ে বেশি রাজনীতি করছে।

বৃহস্পতিবার (১৩ ফেব্রুয়ারি) দুপুরে গোপালগঞ্জের টুঙ্গিপাড়া উপজেলা আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।

খালেদা জিয়ার মুক্তি প্রসঙ্গে ওবায়দুল কাদের বলেছেন, তাকে (খালেদা) প্যারোলে মুক্তি দেয়ার জন্য পরিবার থেকে বিভিন্ন ভাবে আবেদন করা হয়েছে। যারা এ আবেদন করেন, টেলিভিশনের পর্দায় আবেদন করেন। আমি সকালেও খবর নিয়েছি, তারা লিখিত ভাবে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর কাছে প্যারোলের জন্য আবেদন করেননি। এখন লিখিত আবেদন করলেও এই আবেদন কারণসহ যুক্তিসংগত হতে হবে। যুক্তিযুক্ত কারণ ছাড়া স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী প্যারোল বিবেচনা করতে পারে না, সরকার বিবেচনা করতে পারে না।

বিএনপি’র মহাসচিব মির্জা ফকরুল ইসলাম আলমগীরের বক্তব্যের জবাবে পাল্টা প্রশ্ন ছুড়ে দিয়ে আওয়ামী লীগের সাধারন সম্পাদক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, খালেদা জিয়াকে কি আওয়ামী লীগ জেলে নিয়েছে? তাকে কি শেখ হাসিনা জেলে নিয়েছেন? তাকে জেলে নিয়েছে আদালত। তত্ত্বাবধায়ক সরকারের মামলায় তিনি বিচারাধীন আছেন। তার মামলাটি রাজনৈতিক মামলা নয়, দূর্নীতির মামলা। রাজনৈতিক মামলা হলে সরকার তার মুক্তি নিয়ে বিবেচনা করতে পারতো। দূর্নীতি মামলায় তাকে মুক্তি দেয়ার একমাত্র এখতিয়ার রয়েছে আদালতের।

সেতুমন্ত্রী বলেন, আজকের ছেলে মেয়েরা শিক্ষিত হলে, বড় হলে, প্রধানমন্ত্রী হলে টাকার পাহাড় বানায়। কিন্তু প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ছেলে আইসিটি বিপ্লব করেছে, কোন হাওয়া ভবন বানায়নি।

সেতুমন্ত্রী ওবায়দুর কাদের আরো বলেছেন, টুঙ্গিপাড়ায় প্রত্যেক পরিবারের একজন যুবকের কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা হবে আমাদের নেত্রীর অঙ্গীকার। ধৈয্য ধরুন বেকার যুবকেরা তোমাদের চাকরীর ব্যবস্থা হবে। টুঙ্গিপাড়ার ঘরে ঘরে বিদ্যুৎ গেছে, গ্যাসও আসবে বলে জানান আওয়ামী লীগের সাধারন সম্পাদক।

এসএম/আওয়াজবিডি

ads